spot_img
মঙ্গলবার, জুলাই ১৬, ২০২৪
29 C
Bangladesh
মঙ্গলবার, জুলাই ১৬, ২০২৪
মঙ্গলবার, জুলাই ১৬, ২০২৪
spot_img
আরও
    DinBartaকুষ্টিয়াকুষ্টিয়াসেতুর টোল চাওয়ায় কর্মচারীদের বেধড়ক পেটালেন ছাত্রলীগের নেতা–কর্মীরা
    spot_imgspot_img

    সেতুর টোল চাওয়ায় কর্মচারীদের বেধড়ক পেটালেন ছাত্রলীগের নেতা–কর্মীরা

    কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার লাহিনীপাড়া এলাকায় কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী আঞ্চলিক মহাসড়কে সৈয়দ মাস উদ রুমী সেতুর টোলের টাকা চাওয়ায় কর্মচারীদের ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা বেধড়ক পিটিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

    শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে সেতুটির পশ্চিম প্রান্তের টোল প্লাজায় এ ঘটনা ঘটে।

    ছাত্রলীগের হামলার পর সেতুর কর্মচারীরা তাঁদের ধাওয়া দেন। এতে ছাত্রলীগের কয়েকজন কর্মী আহত হয়েছেন। এ সময় তাঁদের অন্তত তিনটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়।

    আরও পড়ুনঃ বাবার বিরুদ্ধে কিশোরী ধর্ষণ মামলা মায়ের

    পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, শুক্রবার কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের সামনে মুজিব চত্বরে শোকসভার আয়োজন করে জেলা ছাত্রলীগ। সেখানে প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও কুষ্টিয়া-৩ আসনের সংসদ সদস্য মাহবুব উল আলম হানিফ। বেলা ১১টার দিকে ওই কর্মসূচিতে যোগ দিতে কুমারখালী উপজেলা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা শতাধিক মোটরসাইকেল নিয়ে রওনা দেন।

    কুষ্টিয়ার কুমারখালী মীর মোশারোফ হোসেন সেতুতে আসলে টোলকর্মীদের সাথে কুমারখালী ছাত্রলীগের কি ঘটেছিল, দেখুন ইউটিউবে

    সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া টোল প্লাজার একাধিক সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গেছে, সৈয়দ মাস উদ রুমী সেতুর পশ্চিম প্রান্তে টোল প্লাজায় ছাত্রলীগের মোটরসাইকেল বহরকে থামানোর চেষ্টা করেন সেতুর টোল আদায়ে দায়িত্বে থাকা কর্মচারীরা। এ সময় ছাত্রলীগের নেতা–কর্মীদের সঙ্গে তাঁদের তর্ক হয়।

    একপর্যায়ে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতা–কর্মী মোটরসাইকেল থেকে নেমে টোল প্লাজার এক কর্মচারীকে কিল–ঘুষি মারতে থাকেন। অন্য কর্মচারীরা প্রতিবাদ করলে ছাত্রলীগের আরও নেতা–কর্মী এসে তাঁদের মারধর করতে থাকেন।

    আরও পড়ুনঃ বিদ্যুৎস্পৃষ্ট ব্যক্তিকে উদ্ধার করতে গিয়ে ছাত্রের মৃত্যু

    টোল প্লাজার কর্মচারীরা অভিযোগ করেন, টোলের টাকা চাওয়ায় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা মোটরসাইকেল থামিয়ে এক কর্মচারীকে মারধর শুরু করেন। বাধা দিতে গেলে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা মিলে অন্য কর্মচারীদের পেটান ও লাঠিসোঁটা নিয়ে হামলা করেন। একপর্যায়ে আশপাশের লোকজন জড়ো হয়ে তাঁদের ধাওয়া করেন। এ সময় সেতুর টোল প্লাজায় যানজটের সৃষ্টি হয়।

    অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে কুমারখালী কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি নাজমুল হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, শোকসভায় যেতে দেরি হচ্ছিল বলে দ্রুত টোল প্লাজা দিয়ে যেতে চাচ্ছিল সবাই। এ সময় টোল প্লাজার কর্মচারীরা বাধা দেন। ছাত্রলীগের পরিচয় দেওয়ার পর ক্ষিপ্ত হয়ে কটূক্তি করেন তাঁরা। এতে ছাত্রলীগের কর্মীরা উত্তেজিত হয়ে বাগ্‌বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। হাতাহাতির একপর্যায়ে কর্মচারীরা পেছন থেকে ধাওয়া দিয়ে ছাত্রলীগের কয়েকজন কর্মীকে আহত করেন। তাঁরা হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। রাতে এ বিষয়ে বৈঠক করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে।

    কী কারণে সংঘর্ষ হয়েছে, তা জানেন না উল্লেখ করে সেতুর ইজারাদার পারভেজ আনোয়ার ওরফে তনু বলেন, ‘সেখানে একাধিক সিসিটিভি ক্যামেরা আছে। ফুটেজ দেখলে বিস্তারিত জানা যাবে। কয়েকজন কর্মচারী আহত হয়েছেন। এখনই কিছু বলতে চাই না।’

    জানতে চাইলে কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, ‘ছাত্রলীগ নেতা–কর্মীদের সঙ্গে সেতুর টোল প্লাজার লোকজনের হাতাহাতি হয়েছে। কয়েকজন আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

    spot_imgspot_img

    ফলো করুন-

    সম্পর্কিত বার্তা

    জনপ্রিয় বার্তা

    সর্বশেষ বার্তা