spot_img
মঙ্গলবার, জুলাই ১৬, ২০২৪
30 C
Bangladesh
মঙ্গলবার, জুলাই ১৬, ২০২৪
মঙ্গলবার, জুলাই ১৬, ২০২৪
spot_img
আরও
    DinBartaদেশজাতীয়প্রথমবারের মত আলোকিত হলো পুরো পদ্মা সেতু
    spot_imgspot_img

    প্রথমবারের মত আলোকিত হলো পুরো পদ্মা সেতু

    প্রথমবারের মত স্বপ্নের পদ্মা সেতুর দুই প্রান্তেই ঝলমল করে জ্বলে উঠল আলো, আলোকিত হলো পুরো পদ্মা সেতু। আজ মঙ্গলবার (১৪ জুন) সন্ধ্যা ৬টা ৫৪ মিনিটে মাওয়া ও জাজিরা প্রান্তের ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্টে একসঙ্গে বাতি জ্বালানো হয়।

    দুই প্রান্তের দুই সুইচে পদ্মা সেতুর ওপর অংশ দিনের আলোর মতো পরিষ্কার হয় এলইডি বাতির আলোতে। সেতু খুলে দেওয়ার ১১ দিন আগে ওই আলোর ঝলকানিতে উচ্ছ্বসিত পদ্মাপারের মানুষ।

    আরও পড়ুনঃ কুষ্টিয়ায় ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন

    সেতুর ঝলমল আলো দেখতে দুই প্রান্তেই লোকজন জড়ো হন। নিরাপত্তার কড়াকড়ির কারণে কেউ কাছে না যেতে পারলেও দূর থেকেই উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন। এমন মুহূর্ত স্মরণীয় করে রাখতে অনেকে ছবি তোলেন, অনেকে ভিডিও করেন। অনেকে প্রিয়জন ও বন্ধুদের সঙ্গে আনন্দ ভাগাভাগি করতে আলোকিত পদ্মা সেতু ফেসবুক লাইভে দেখান।

    বিদ্যুতের দায়িত্বে থাকা সেতু বিভাগের সহকারী প্রকৌশলী সাদ্দাম হোসেন বলেন, ৪ জুন বিকেলে পদ্মা সেতুতে পরীক্ষামূলকভাবে প্রথম বৈদ্যুতিক বাতি জ্বালানো হয়। ওই দিন সেতুর ১৪ থেকে ১৯ নম্বর পিলারের মাঝামাঝিতে ২৪টি ল্যাম্পপোস্টে বাতি জ্বালানো হয়েছিল। এরপর ১১ জুন পর্যন্ত পরীক্ষামূলকভাবে সেতুর সব কটি বাতি জ্বালানো হয়। তখন সেতুতে জেনারেটরের মাধ্যমে বাতি জ্বালানো হয়েছিল। গতকাল সোমবার মাওয়া প্রান্তে বৈদ্যুতিক সংযোগের মাধ্যমে ২০৭টি বাতি জ্বালানো হয়।

    আরও পড়ুনঃ ঘরের মেঝে খুঁড়ে যুবকের মরদেহ উদ্ধার, গ্রেফতার ৩

    মঙ্গলবার মূল সেতুর ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার ও দুই প্রান্তের ৩ দশমিক ৬৮ কিলোমিটার ভায়াডাক্টে একসঙ্গে আলো জ্বালানো হয়। পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান মো. আবদুল কাদের মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বলেন, মুন্সিগঞ্জ ও জাজিরা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির দেওয়া বৈদ্যুতিক সংযোগের মাধ্যমে এই প্রথম সম্পূর্ণ সেতুর ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্টে পরীক্ষামূলকভাবে বাতি জ্বালানো হয়েছে। ৬টা ৫৪ মিনিটে ৯ দশমিক ৮৩ কিলোমিটার সেতুপথের দুই পাশের সব ল্যাম্পপোস্টের আলো জ্বালিয়ে দেন প্রকৌশলীরা।

    তিনি আরো বলেন, দিনের বেলায় মেঘলা আকাশ বা ঘন কুয়াশায় আলোর স্বল্পতায় অটো জ্বলবে বাতিগুলো। অর্থাৎ প্রাকৃতিক আলোর স্বল্পতা দেখা দিলে বাতিগুলো নিজে থেকেই জ্বলে উঠবে।

    এদিকে সেতু উদ্বোধনের দিন গুনছে এখন দেশের কোটি কোটি মানুষ। পদ্মা সেতু ঘিরে যোগাযোগ ব্যবস্থায় আমূল পরিবর্তন মানুষের হৃদয়ে উচ্ছ্বাস ছড়াচ্ছে। সময় যত ঘনিয়ে আসছে ততই উচ্ছ্বাস বাড়ছে। ২৫ জুন উৎসবকে বরণ করতে প্রস্তুত পদ্মাপারের লাখো মানুষ। উদ্বোধনের জন্য এখন পুরো প্রস্তুত স্বপ্নের পদ্মা সেতু।

    spot_imgspot_img

    ফলো করুন-

    সম্পর্কিত বার্তা

    জনপ্রিয় বার্তা

    সর্বশেষ বার্তা