spot_img
মঙ্গলবার, জুলাই ১৬, ২০২৪
29 C
Bangladesh
মঙ্গলবার, জুলাই ১৬, ২০২৪
মঙ্গলবার, জুলাই ১৬, ২০২৪
spot_img
আরও
    DinBartaকিশোরগঞ্জভৈরবস্বামীর বঁটির কোপ অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে, অস্ত্রোপচারে মৃত সন্তান প্রসব
    spot_imgspot_img

    স্বামীর বঁটির কোপ অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে, অস্ত্রোপচারে মৃত সন্তান প্রসব

    স্বামীর বঁটির কোপে গুরুতর আহত ভৈরবের অন্তঃসত্ত্বা মিতু আক্তারের পেট থেকে অস্ত্রোপচারে মৃত সন্তান প্রসব করানো হয়েছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় মিতু ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (ঢামেক) চিকিৎসাধীন।

    বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে কিশোরগঞ্জের ভৈরব থানার নিউ টাউন এলাকায় স্বামীর বঁটির কোপে গুরুতর আহত হন মিতু আক্তার (১৮)। পরে তাকে ঢামেকে নিয়ে এলে ওইদিন রাতেই তার অস্ত্রোপচার করেন চিকিৎসকরা।

    আরও পড়ুনঃ সাংবাদিক রুবেল হত্যা সন্দেহের তীর উপজেলা চেয়ারম্যান কামারুল আরেফিন’র দিকে

    শনিবার (২৩ জুলাই) রাতে মিতুর বোন ঝুমুর বেগম বলেন, আমার বোন আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিল। দুই বছর আগে মো: জাহেদ মিয়ার (৩২) সঙ্গে তার বিয়ে হয়। জাহিদ আগেও একটি বিয়ে করেন। সেই ঘরে আড়াই বছরের একটি মেয়েও রয়েছে। সে তার মায়ের কাছে থাকে। গত বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে আমার বোনের সঙ্গে তার কাটাকাটি হয়।

    একপর্যায়ে রান্নাঘর থেকে বঁটি এনে জাহেদ মিতুকে কুপিয়ে রক্তাক্ত করে। তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে জাহেদকে ধরে পুলিশে সোপর্দ করেন। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় মিতুকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়। দিবাগত রাত দেড়টার দিকে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে তার মৃত প্রসব করানো হয়।

    আরও পড়ুনঃ পুলিশ লাইন্স ব্যারাকের ছাদ থেকে পুলিশের গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার

    তিনি বলেন, জাহেদ বিভিন্ন জায়গা থেকে ভাঙারির মালামাল কুড়িয়ে দোকানে বিক্রি করেন। তিনি মাদকাসক্ত। এ নিয়ে আমার বোনের সঙ্গে প্রায়ই তার ঝগড়া হতো।

    ঝুমুর বলেন, চিকিৎসকরা জানিয়েছেন এক সপ্তাহ পর মিতুর আবার অপারেশন লাগবে। এই সময় তাকে আইসিইউতেও রাখতে হতে পারে বলেও জানান চিকিৎসকরা।

    তিনি আরও বলেন, আমাদের গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জের ভৈরব থানায়। মিতু স্বামীর সঙ্গে নিউ টাউন এলাকায় থাকতেন।

    ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মোঃ বাচ্চু মিয়া অন্তঃসত্ত্বা মিতু আক্তারের পেট থেকে অস্ত্রোপচারে মৃত সন্তান প্রসব করানোর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

    spot_imgspot_img

    ফলো করুন-

    সম্পর্কিত বার্তা

    জনপ্রিয় বার্তা

    সর্বশেষ বার্তা